ছাত্রলীগের গৌরব ফিরিয়ে আনতে চাই: শোভন

0 ১৫

 

ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেছেন, ‘ছাত্রলীগের গৌরব ফিরিয়ে আনাই আমার লক্ষ্য। ছাত্রসমাজের কাছে প্রাণের সংগঠন ছাত্রলীগকে আরও জনপ্রিয় ও গ্রহণযোগ্য করে তোলা আমার দ্বিতীয় লক্ষ্য।’ ছাত্রলীগের শীর্ষ পদ পাওয়ার পর এক তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে ছাত্রলীগ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড হিসেবে থাকবে। তরুণ ভোটারদের আকৃষ্ট করতে সারাদেশ সফরে নামার কথা জানান এ ছাত্র নেতা।
তিনি বলেছেন, ‘প্রত্যেকটি জেলায় অন্তত দুই দিন করে অবস্থান করে নৌকার পক্ষে, শেখ হাসিনার উন্নয়নের পক্ষে ছাত্রসমাজকে ঐক্যবদ্ধ করা হবে। আগামীর ছাত্রলীগ কারও স্বার্থে ব্যবহার হবে না। একমাত্র শেখ হাসিনার নির্দেশনা বাস্তবায়নই হবে আমার নেতৃত্বাধীন ছাত্রলীগের অন্যতম কাজ। ’
দেশের অন্যতম প্রাচীন ছাত্রসংগঠনের নবনির্বাচিত এ সভাপতি আরও বলেন, ‘ছাত্রলীগ হবে মেধাবীদের সংগঠন। ছাত্রলীগ ছাত্রসমাজের অধিকার রক্ষায় সর্বদা আত্মনিয়োগ করবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন করতে সবসময় প্রস্তুত থাকবে ছাত্রলীগ।’

ছাত্রলীগের শীর্ষ পদ পাওয়ায় তার অনুভূতি জানতে চাইলে শোভন বলেন, ‘বিষয়টি আনন্দের। তবে আমি আনন্দের চেয়ে ভারত্বের বিষয়টি বেশি অনুভব করছি। শেখ হাসিনা আস্থা-বিশ্বাস রেখে যে দায়িত্ব দিয়েছেন জীবন দিয়ে হলেও অর্পিত দায়িত্ব সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করে যাব, এই শপথ নিয়েছি দায়িত্ব পাওয়ার পরে।’
শোভন তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বাংলা ট্রিবিউনকে আরও বলেন, ‘তরুণ ভোটারদের আকৃষ্ট করতে একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগ পর্যন্ত দেশব্যাপী সফর করব।’
প্রসঙ্গত, রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের বাবা নুরুন্নবী চৌধুরী কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি ভুরুঙ্গামারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানও। তার মা রিজিয়া খাতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা। তার দাদা শামসুল হক চৌধুরী ১৯৭০ সালে গণপরিষদের সদস্য ছিলেন। এরপরে ১৯৭৩ ও ৭৯ সালে তিনি দুইবার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

মন্তব্য
Loading...