ব্যাংক একাউন্ট থেকে টাকা উধাও হলে কি করবেন ?

0 ২৩

 

রাতারাতি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা উধাওয়ের মতো ঘটনা থেকে বাঁচতে রক্ষীবিহীন এটিএম এড়িয়ে চলা উচিত বলে জানাচ্ছেন গোয়েন্দারা। কেননা, প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে লালবাজার জানিয়েছে, কানাড়া ব্যাঙ্কের একটি এটিএমে ‘স্কিমার’ মেশিন লাগায় দুষ্কৃতীরা। ফলে ওই এটিএম ব্যবহারকারী গ্রাহকদের ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের গোপন তথ্য চলে যায় দুষ্কৃতীদের হাতে। তাই কার্ড ছাড়াই টাকা সরিয়ে নিতে পেরেছে দুষ্কৃতী দলটি।
তবে এই দুষ্কৃতীদের খপ্পরে পড়ে টাকা খোয়ালেও আতঙ্কের কিছু নেই। আপনার টাকা লোপাটের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে স্থানীয় থানার পাশাপাশি লালবাজারে ব্যাঙ্ক ফ্রড শাখায় লিখিত অভিযোগ জানাতে হবে। তেমনই ৭২ ঘণ্টার মধ্যে রিজার্ভ ব্যাঙ্কেও লিখিত অভিযোগ জানাতে হবে। সেক্ষেত্রে খোয়া যাওয়া টাকা ফেরত পাওয়ার কথা। ইতিমধ্যেই কলকাতা পুলিস এই অপরাধের মোকাবিলায় একটি হেল্প লাইন চালু করেছে। সেই নম্বরটি হল—৮৫৮৫০-৬৩১০৪।
আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা খোয়া গেলে কী করবেন? ঠান্ডা মাথায় আপনার ডেবিট কার্ডটি ‘ব্লক’ করুন। তারপর স্থানীয় থানা, লালবাজারের ব্যাঙ্ক ফ্রড শাখার হেল্প লাইনে (৮৫৮৫০-৬৩১০৪) ফোন করে অভিযোগ জানান। এরপর রিজার্ভ ব্যাঙ্কে লিখিত অভিযোগ দায়ের করুন। মাথায় রাখতে হবে, পুরো প্রক্রিয়াটি ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অবশ্যই শেষ হওয়া চাই। পাশাপাশি, এখন থেকে এটাও মাথায় রাখতে হবে, নামী সংস্থা ছাড়া যেখানে সেখানে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড সোয়াইপ করে বিল মেটাবেন না। সন্দেহ হলে, নগদে বিল মেটান। রক্ষীবিহীন এটিএম এড়িয়ে চলুন।
লালবাজার সূত্রের খবর, এটি একটি সংগঠিত অপরাধ। সম্ভবত ভিনরাজ্যের কোনও দল এই অপরাধের পিছনে রয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে দেখা যাচ্ছে, ১৮ থেকে ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে এই অপরাধ হয়েছে। এমনিতে ২১ জুলাই তৃণমূলের শহিদ দিবস উপলক্ষে কলকাতা পুলিস ব্যস্ত থাকে। তাই সচেতনভাবেই ওই সময়কে বেছে নিয়েছে দুষ্কৃতীরা। নাকি এটা নিছক কাকতালীয়?

মন্তব্য
Loading...